আমিনপুর থানা পাবনা ব্লগ সাইটে ভিজিট করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আমাদের সাইটের ব্যবহার বিধিমালা পড়ুন।

Table of Content

যোহরের নামাজ কয় রাকাত

প্রিয় পাঠক, যোহরের নামাজ কয় রাকাত তা বিভিন্ন বিশ্বস্ত মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়াও যোহরের নামাজের ওয়াক্ত, যোহরের দুই রাকাত নফল নামাজের নিয়ত

প্রিয় পাঠক, আসসালামু আলাইকুম। মীর বাংলা ডট কম এই আর্টিকেলের মাধ্যমে যোহরের নামাজ কয় রাকাত সেই বিষয় নিয়ে আলোচনা করবে। আশা করছি সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়বেন তাইলে যোহরের নামাজের রাকাত নিয়ে আর কোন প্রশ্ন থাকবে না।

প্রিয় পাঠক, যোহরের নামাজ কয় রাকাত তা বিভিন্ন বিশ্বস্ত মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এছাড়াও যোহরের নামাজের ওয়াক্ত, যোহরের দুই রাকাত নফল নামাজের নিয়ত ও যোহরের নামাজের ফজিলত এবং যোহরের ৪ রাকাত সুন্নত নামাজের নিয়ম নিয়ে মীর বাংলা ডট কম সাইটেই আলোচনা করা আছে। সেগুলোও পড়ে আসবেন।

যোহরের নামাজ কয় রাকাত

তো পাঠক, কথা না বাড়িয়ে আমরা চলে যাচ্ছি যোহরের নামাজ কয় রাকাত সেই বিষয়ের উপর। আশা করি ভাল লাগবে "যোহরের নামাজ কয় রাকাত" - আর্টিকেলটি ।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ "যোহরের নামাজ কয় রাকাত" -আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়ার পরেও যদি কোন সমস্যা থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

যোহরের নামাজ কয় রাকাত

যােহরের নামাজ মােট ১২ রাকাত।

  • ৪ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ।
  • ৪ রাকাত ফরয।
  • ২ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ।
  • ২ রাকাত নফল।

৪ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ

সুন্নতে মুয়াক্কাদা মোট ১২ রাকাত। ১২ রাকাত সুন্নাতে মুয়াক্কাদা এর মধ্যে যোহরের আগে চার রাকাত, পরে দুই রাকাত। মাগরিবের পরে দুই রাকাত। এশার পরে দুই রাকাত এবং ফজরের আগে দুই রাকাত। হাদিস শরীফে এসেছে, হযরত আয়েশা রাযি. থেকে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, যে ব্যক্তি দৈনিক ১২ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদা আদায় করবে তার জন্য আল্লাহ তায়ালা জান্নাতে একটি ঘর নির্মাণ করবেন। 

আরোও পড়ুনঃ ফজরের নামাজের নিয়ম

মানে ওই ৪ রাকাত এর যুক্ত। যে ব্যক্তি এই ফজিলত চাইবে সে নিয়মিত এই ৪ রাকআত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ আদায় করবেন। আবার যে এই ফজিলতের জন্য করবেন না তার জন্য নিয়মিত করার শর্ত নেই। মানে ৪ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ আদায় করা নির্দেশ নয় তবে উৎসাহ দেওয়া হয়েছে। রাসুল (সা.) এটি পড়তেন এবং উৎসাহ দিতেন।

৪ রাকাত ফরয

৪ রাকাত সুন্নত আদায় করার পর যোহরের ৪ রাকাত ফরয নামাজ আদায় করা হয়। আগের ৪ রাকাত সুন্নত নামাজ বাধ্যতামূলক না হলেও এটি আবশ্যিক এবং অবশ্যই পালন করতে হবে।

২ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ

যোহরের প্রথম ৮ রাকাত নামাজ (৪ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ ও ৪ রাকাত ফরজ) আদায় করার পর এই ২ রাকাত সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ নামাজ আদায় করতে হয়। এই দুই রাকাত নামাজ যে পড়তেই হবে এমন বিধান নেই। রাসুলুল্লাহ (সাঃ) পড়েছেন এবং আমাদেরকেও এটি পড়তে তাগিদ দিয়েছেন।

২ রাকাত নফল

যোহরের প্রথম ১০ রাকাত নামাজ আদায় করার পর এই দুই রাকাত নফল নামাজ আদায় করা হয়। এটিও বাধ্যতামূলক নয়, তবে পড়লে ভালো। এটিরও অনেক ফজিলত রয়েছে। আমরা অবশ্যই এই দুই রাকাত নফলও আদায় করার চেষ্টা করবো।

যোহরের নামাজ কয় রাকাত তা এই পোষ্টে বলে দেওয়া হয়েছে। তবে, যোহরের নামাজের নিয়ম, যোহরের নামাজের শেষ সময় ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলাদা আর্টিকেল লেখা আছে। সেগুলো পড়ে আসতে পারেন।

আমি মীর রাব্বি হোসেন। Mir Rabbi Hossain ফ্রম আমিনপুর।

Post a Comment